1. momin02@gmail.com : MD Momin : MD Momin
  2. admin@upokulbarta.com : upokulbarta : Md Shohel
নুরজাহান বেগমের সফতার গল্প | Upokul Barta
নোটিশঃ
উপকূলের  জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল উপকূল বার্তায় আপনাকে স্বাগতম
সর্বশেষ সংবাদ
ভোলায় দুই ছিনতাইকারী আটক অষ্ঠাদশী কি‌শোরী! বামনা থানা অফিসার ইনচার্জের সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উপজেলার ৪ ইউনিয়নেই মহড়া পরিচালনা নব‌ নির্বা‌চিত জমিয়ত নেতৃবৃন্দকে চরমাদ্রাজ ফা‌জিল মাদরাসার পক্ষ থে‌কে সংবর্ধনা উপকূলীয় বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য ১২-১৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের দাবি ভোলায় প্রধান শিক্ষক চাকরি থেকে বরখাস্ত এ শহরে এলডি ট্যাক্স প্রদানের নিমিত্ত অনলাইন রেজিস্ট্রেশনের জন্য জনগণকে সম্পৃক্ত করতে প্রচারণার আহবান জানালেন ডিএলআরসি কাউখালী উপজেলার ভূমি অফিস পরিদর্শনে বরিশালের ডিএলআরসি:অনলাইনে এলডি ট্যাক্স গ্রহণের নিমিত্ত জনগণকে নিবন্ধনের আহবান জানিয়ে প্রচারণার নির্দেশ ভোলায় উদ্বোধন হয়েছে দৃষ্টিনন্দন মডেল মসজিদ ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র

নুরজাহান বেগমের সফতার গল্প

  • প্রকাশিত : বুধবার, ৫ মে, ২০২১
  • ১১৯ বার পঠিত
নুরজাহান বেগম, পশ্চিম কাচারীকান্দা, রতনদি তালতলী, গলাচিপা, পটুয়াখালী।

সারমিন সুলতানাঃ

বৃহত্তর উপকূলীয় অঞ্চলের পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলার রতনদি তালতলী ইউনিয়নের পশ্চিম কাচারীকান্দা গ্রামের ছোট্ট একটা জায়গায় নুরজাহান বেগমের বসবাস ।

নুরজাহান বেগম লেখা পড়া পঞ্চম শ্রেণির বেশী আর হয়নি ,এরমধ্যে বিয়ে, অভারের সংসারে ৩সন্তান নিয়ে  বসবাস,পারিবারিক অস্বচ্ছতা স্বামীর সংসারের প্রতি উদাসীনতার কারণে সন্তানের দায়িত্ব নেয় নুরজাহান বেগম,ছোট করে কৃষি কাজ শুরু করেন, নুরজাহান বেগমের স্বামী ছিল দিনমজুর।

বিবাহের কয়েক বছর পর এনজিও থেকে ঋণ ও আত্মীয় স্বজনদের নিকট থেকে টাকা ধার নিয়ে গরুর ব্যবসা শুরু করে।এক বছরের মাথায় ৫০০০০ ( পঞ্চাশ হাজার টাকা) লোকশান হলো,কোন উপায় খুঁজে না পেয়ে বাড়ি থেকে সন্তান স্বামীকে নিয়ে পালিয়ে যায় ঢাকায়।

অনেক কষ্টে চলতে থাকে নুরজাহান বেগমের সংসার।দুই বছর ঢাকায় থাকে। আবার ফিরে এসে নিজ গ্রামের সেই ছোট্ট কুটিরে। কোন উপায় আর রইল না। নিজ গুনে শুরু করল দেশি মুরগি পালন এবং বাড়ির আঙ্গিনায় সবজি চাষ।

২০০৬ সালে নবজীবন প্রকল্পের সাথে যুক্ত হয়ে তাদের পরামর্শে ২০ শতক জমি বর্গা নিয়ে সবজি চাষ শুরু করেন।নুরজাহান বেগম তখন ও কৃষি কাজে ভালো পারদর্শী ছিলাম না।শুধু এক সিজনে সবজি উৎপাদনের মাধ্যমে কৃষি কাজে সীমাবদ্ধ ছিল।পরবর্তীতে সুশীলনের মেকিং মার্কেট ওয়ার্ক ফর উইমেন প্রকল্পের সাথে যুক্ত হয়ে সবজি চাষে এবং বাজারজাতকরনে দক্ষতা উন্নয়ন করেন।

বিভিন্ন প্রশিক্ষণ ও উপকরনের সহায়তা পাই,উপজেলা কৃষি অফিস থেকে পরামর্শ পায়। নুরজাহান বেগম  বলেন,আমার কৃষি খামারের পাশাপাশি গরু ছাগল হাঁস মুরগি এবং কবুতর পালন করছি। খামারে উৎপাদন থেকে প্রতি বছর ৯৭৬০০০ টাকা আয় করি।আমার খামারে ৪ জন নারী খন্ডকালীন কাজ করেন।আমি আমার আয়ের টাকা সংসারে খরচ করি,পাশাপাশি ব্যাংকে জমা রাখি।

কৃষি খামারের আয় থেকে আমার ছোট মেয়েটার মেডিকেল কলেজে পড়ার খরচ চালিয়ে যাচ্ছি, অভাবের কারনে আমি একজন নারী হয়ে কৃষি কাজে নেমেছিলাম, যারা আমার এ কৃষি কাজকে ছোট করে দেখতো,আজকে তারা আমার কৃষি কাজ অনুকরণ করে। আমি চাই আমার মতো নুরজাহান প্রতিটি ঘরে ঘরে তৈরি হোক।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
৮১৫,২৮২
সুস্থ
৭৫৫,৩০২
মৃত্যু
১২,৯১৩
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
২,৩২২
সুস্থ
২,০৬২
মৃত্যু
৪৪
স্পন্সর: একতা হোস্ট

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved www.upokulbarta.com © 2022
Development BY MD Rasel Mahmud